গোপালগঞ্জে বৃদ্ধ নিহত, ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত

বুলবুলের প্রভাবে গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া গাছ চাপা পড়ে ছাকেন হাওলাদার (৭০) নামে এক বৃদ্ধ নিহত হয়েছেন। এছাড়া বিভিন্ন গ্রামে শতাধিক কাঁচা ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে। ভেঙে গেছে হাজার হাজার গাছপালা।  শীতকালীন সবজি ক্ষেতের ব্যাপক ক্ষয় ক্ষতি হয়েছে।

শনিবার রাত থেকে দমকা বাতাসের সাথে শুরু হয় ভারী  বৃষ্টিপাত। রোববার দুপুরের দিকে বাতাসের গতিবেগ বৃদ্ধি পেলে গোপালগঞ্জ সদর, কোটালীপাড়া ও টুঙ্গিপাড়া উপজেলার ওপর দিয়ে বয়ে যায় বুলবুল। এ সময় তিন উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে শতাধিক বাড়ি বিধ্বস্ত হয়। কোটালীপাড়া উপজেলার বান্ধাবাড়ি গ্রামে গাছের নিচে চাপা পড়ে ছাকেন হাওলাদার (৭০) নামে এক বৃদ্ধ নিহত হন।

বুলবুলের প্রভাবে জেলার বিভিন্ন স্থানে হাজার হাজার গাছ ভেঙে পড়ে। ঢাকা-খুলনা মহাসড়কসহ বিভিন্ন সড়কের ওপর গাছ ভেঙে পড়ায় সড়ক যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে। পরে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ও এলাকাবাসী মহাসড়ক থেকে গাছ সড়িয়ে যান চলাচল স্বাভাবিক করে।

এর আগে ঘুর্ণিঝড় বুলবুল মোকাবিলায় সর্বোচ সতর্কতা গ্রহণ করে জেলা প্রশাসন। উপজেলা প্রশাসনকে সতর্ক থাকতে নির্দেশ দেয় জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানা। খোলা হয় কন্ট্রোলরুম। জেলা প্রশাসনের পাশাপশি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলো বুলবুল মোকাবিলায় কাজ করে।

গোপালগঞ্জ/বাদল সাহা/সাইফ

Source