ব্রিটিশ নাগরিকত্ব হারাচ্ছেন আইএস বধূ শামিমা

 

লন্ডন থেকে আইএসে যোগ দেয়া শামীমা বেগমের ব্রিটিশ নাগরিকত্ব কেড়ে নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন ব্রিটিশ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাজিদ জাভিদ। তার এ সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন হলে দ্বৈত নাগরিক থেকে কেবল বাংলাদেশি নাগরিক হবেন শামিমা।বিবিসি

২০১৫ সালে মাত্র ১৫ বছর বয়সে আইএসের উদ্দেশ্যে লন্ডন ছেড়েছিলো বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত শামিমা। পরে সিরিয়ায় আইএসের নেদারল্যান্ড থেকে আসা এক জিহাদিকে বিয়ে করে সে। আগের দুই সন্তান নষ্ট হওয়ার পর গেল সপ্তাহে শামিমা ছেলে সন্তানের জন্ম দিয়েছে।

শামিমার নাগরিকত্ব বাতিল ঠেকাতে আইনি লড়াইয়ের কথা জানিয়েছে, তার পরিবার। তবে ব্রিটিশ নাগরিকত্ব আইন ১৯৮১ অনুযায়ী, রাষ্ট্রহীন হওয়ার শঙ্কা না থাকলে নাগরিকত্ব বাতিল করার সুযোগ রয়েছে।

ব্রিটিশ আইনবিদ লর্ড ক্যারলি বলেন, শামিমা বেগমের মা বাংলাদেশের নাগরিক। সে হিসেবে বাংলাদেশি আইন অনুযায়ী শামিমাও বাংলাদেশি নাগরিক। সুতরাং ব্রিটিশ নাগরিকত্ব হারালে শামিমার রাষ্ট্রহীন হওয়ার সুযোগ নেই।

ক্যালরি বলেন, এক্ষেত্রে আইনি লড়াই জটিল রূপ নেবে। শামিমার সন্তান কোন দেশের নাগরিক হবে তা নিয়েও জটিলতা তৈরি হবে। শিশুটি ব্রিটেন, নেদারল্যান্ড ও বাংলাদেশ- এই তিন দেশের নাগরিক হতে পারে।

এদিকে, বিবিসিকে শামিমা বলেছেন, বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত হলেও তিনি কখনও বাংলাদেশে যাননি।