বরিশালে মাঝখানে বিদ্যুতের খুঁটি রেখেই চলছে পাকা সড়ক নির্মাণ

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ মাঝখানে বিদ্যুতের খুঁটি রেখেই চলছে পাকা সড়ক নির্মাণ কাজ। ফলে সড়কটিতে দুর্ঘটনার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। ঘটনাটি জেলার মুলাদী উপজেলার গাছুয়া ইউনিয়নের নতুন বাজার থেকে চরডুমুরিতলা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পর্যন্ত সড়কের।

উপজেলা এলজিইডি অফিস সূত্রে জানা গেছে, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের অধীনে বিডিআরআইডিপি প্রকল্পের আওতায় গত ফেব্রুয়ারি মাসে সড়কের নির্মাণ কাজ শুরু করা হয়। স্থানীয়রা জানান, সড়কের চরধলেশ্বর এলাকায় রাস্তার মাঝখানে তিনটি বিদ্যুতের খুঁটি রয়েছে। এলাকাবাসীর পক্ষে পল্লী বিদ্যুতের খুঁটি অপসারণের জন্য মুলাদী পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে আবেদন করলেও খুঁটি অপসারণ না করেই সড়ক পাকা করণের কাজ চলমান রয়েছে। ফলে সড়কে যাতায়াতকারী যানবাহন দুর্ঘটনার শিকারের আশংকা রয়েছে। এলাকাবাসী সড়কের নিরাপত্তার জন্য অবিলম্বে বিদ্যুতের খুঁটিগুলো অপসারণের পর সড়ক পাকা করণের কাজ করার দাবি জানিয়েছেন।

এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট সড়কের ঠিকাদার মনিরুল হাসান এলজিইডি ও বিদ্যুৎ বিভাগের কর্মকর্তাদের সমন্বয়ের অভাবকে দায়ী করে জানান, রাস্তার মাঝখানের বিদ্যুতের খুঁটি অপসারণের জন্য স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান উপজেলা এলজিইডি অফিসের কর্মকর্তাদের একাধিকবার অনুরোধ করা সত্বেও অদ্যবর্ধি কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি। তাই বাধ্য হয়ে তিনি নির্ধারিত সময়সীমার মধ্যে রাস্তার নির্মাণ কাজ সমাপ্ত করার জন্য সড়কের মধ্যে খুঁটি রেখেই নির্মাণ কাজ অব্যাহত রেখেছেন।

উপজেলা প্রকৌশলী প্রবীর কুমার পাল জানান, নির্মাণাধীন রাস্তার মাঝখানের খুঁটি অপসারণের জন্য পল্লী বিদ্যুতের মুলাদী জোনাল অফিসের ডিজিএমকে জানানো হয়েছে। এসময় তাকে উচ্চ আদালতের আদেশের কথাও বলা হয়েছে। তার পরেও তারা খুঁটি অপসারনের জন্য কোন কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণ করেননি। মুলাদী পল্লী বিদ্যুতের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার রেজায়েত আলী জানান, রাস্তার মাঝ থেকে তিনটি খুঁটি অপসারনের জন্য ইউপি চেয়ারম্যানের লিখিত আবেদন পেয়ে তা বরিশাল অফিসের জেনারেল ম্যানেজারের কাছে পাঠানো হয়েছে। তার নির্দেশনা পেলেই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Source :web.dailyjanakantha.com