মুসলিম ব্যক্তির সঙ্গে প্রেম করায় মার খেতে হচ্ছে হৃতিকের বোনকে, বিস্ফোরক অভিযোগ

মুম্বই: আবার একবার বলিপাড়ার শিরোনামে কঙ্গনা-হৃত্বিক সংঘাত। তবে এবার অভিযোগ আরও বিস্ফোরক। হৃতিক রোশনের বোনের সম্পর্কে বিস্ফোরক তথ্য সামনে আনলেন অভিনেত্রী কঙ্গনার বোন রঙ্গোলি চান্দেল।

কঙ্গনা ও হৃতিক- দু’জনেই বলিউডের জনপ্রিয় তারকা। বছর দুয়েক আগে হৃতিক রোশনের বিরুদ্ধে কার্যত হেনস্থার অভিযোগ তুলে তোলপাড় করে দিয়েছিলেন অভিনেত্রী। হৃতিক নাকি কঙ্গনার সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছিলেন। একাধিকবার জোর গলায় সেই অভিযোগ সামনে এনেছেন অভিনেত্রী।

এসব ধামাচাপা পড়ে গিয়েছিল অনেকটাই। তবে আচমকা হৃতিকের বোন সুনয়নার দুটি ট্যুইট উস্কে দেয় নতুন জল্পনা। সুনয়না লিখেছেন, ‘আমি সবসময়ই কঙ্গনার পক্ষে।’ তারপরই আবার তিনি লিখেছেন, ‘আমি নরকে বাস করছি।’ আর এতেই উঠে এসেছে নতুন বিতর্ক। তবে কি তিনি হৃতিক তথা পরিবারের বিপক্ষে?

এই ট্যুইটের ২৪ ঘণ্টা পরে বিস্ফোরক ট্যুইট করেছেন কঙ্গনার বোন রঙ্গোলি। তিনি লিখেছেন, সুনয়না পরিবারের অত্যাচারের শিকার। সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে বারবার তিনি ফোন করছেন কঙ্গনাকে। ফোন করে কান্নাকাটিও করছেন বলে জানিয়েছেন রঙ্গোলি।

রঙ্গোলি জানিয়েছেন, একজন মুসলিম ব্যক্তিকে ভালোবাসেন সুনয়না। আর তাতেই আপত্তি রয়েছে পরিবারের। রঙ্গোলির দাবি, সুনয়নাকে মারধর করেছেন বাবা রাকেশ রোশন। হৃতিকও মোটেই ভাল চোখে দেখছেন না। তিনি নাকি জেলে পাঠানোর চেষ্টা করছেন সুনয়নাকে। কঙ্গনা কীভাবে সাহায্য করবেন, তা নাকি তিনি বুঝতে পারছেন না। তাই এইসব ট্যুইট করেছেন রঙ্গোলি।

সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে সুনয়না জানিয়েছিলেন, পরিবারে কিছু সমস্য়া রয়েছে, তবে তা নিয়ে কথা বলতে রাজি নন তিনি। তাঁর কথায়, ‘আমি চাই না আমার জন্য় কারও কোনও অসুবিধা হোক। আমি শুধু এইটুকু বলতে পারি যে বাড়ি ফেরার আগে ১৭-১৮ দিন ধরে আমি একটি হোটেল অ্য়াপার্টমেন্ট ভাড়া করে ছিলাম। এই একই বিল্ডিংয়ে আমার বাবা-মাও থাকেন কিন্তু আমি সম্পূর্ণ একটি আলাদা ফ্লোরে থাকি আর আমার বাড়িতে ঢোকার দরজাও আলাদা। খুবই কষ্টকর কিন্তু সত্য়িই ওঁরা আমার পাশে নেই।’

কঙ্গনা অবশ্য সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন যে সুনয়নার সঙ্গে তাঁর নিয়মিত যোগাযোগ থাকলেও সুনয়নার পারিবারিক বিবাদের সুযোগ নিতে চান না তিনি।

Source